ঢাকা, শনিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : অক্টোবর ২৭, ২০২০

আলু নেই বরিশালের বাজারে!

অনলাইন ডেস্ক

তালাশ প্রতিবেদক॥ বেশি দামে আলু ক্রয় করে খুচরা বাজারে সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রি করে লোকসানের মুখে পরেছেন আড়তদাররা। এ কারণে দেশের বিভিন্নস্থান থেকে আলু ক্রয় করা বন্ধ রেখেছেন বরিশাল নগরীর ৩৫ জন পাইকারি আড়তদার। ফলে গত চারদিন থেকে বরিশালের আড়ত ও বাজার অনেকটাই আলু শুন্য রয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকালে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সরকার খুচরা বাজারে সর্বোচ্চ ৩৫ টাকা দরে আলু বিক্রয়ের জন্য নির্ধারণ করেছে। কিন্তু বরিশালের আড়তদাররা মুন্সীগঞ্জ, রাজশাহী, দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁওসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আলু ক্রয় করেন ৩২ থেকে ৩৩ টাকা কেজি দরে। খরচসহ প্রতিকেটি আলুর দাম হয় ৩৬ টাকা। যে কারণে অভিযান এবং সরকারি নির্ধারিত মূল্যে আলু বিক্রি করা সম্ভব না হওয়ায় আলু ক্রয় বন্ধ রেখেছেন পাইকারি আড়তদাররা।

নগরীর পেঁয়াজপট্টি এলাকার পায়েল এন্টারপ্রাইজের মালিক এনায়েত হোসেন বলেন, আমরা দেশের বিভিন্নস্থান থেকে আলু ক্রয় করে থাকি। বর্তমানে প্রতি কেজি আলু ক্রয় করে বরিশালে আনা পর্যন্ত ৩৫/৩৬ টাকা খরচ হয়। সরকার নির্ধারিত মূল্যে বিক্রি করলে আমাদের প্রতিদিন লাখ টাকা লোকসান গুণতে হয়। এ কারণে বর্তমানে আলু ক্রয় বন্ধ রাখা হয়েছে। পোর্ট রোড বাজারে আলু ক্রয় করতে আসা দীপক চন্দ্র বলেন, পুরো বাজার ঘুরে কোথাও আলু পাইনি। পরে একটি মুদি দোকান থেকে তিন কেজি আলু ৫০ টাকা কেজি দরে ১৫০ টাকায় ক্রয় করেছি।

পেঁয়াজপট্টি আড়তদার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দুলাল মোল্লা বলেন, প্রতিদিন হাজার হাজার কেজি আলু দেশের বিভিন্নস্থান থেকে ক্রয় করেন বরিশালের পাইকারি আড়তদাররা। তবে বেশি দামে আলু ক্রয়ের পর সরকার নির্ধারিত মূল্যে তা বিক্রি করা সম্ভব হচ্ছেনা। যে কারণে গত চারদিন থেকে আলু ক্রয় করা বন্ধ রয়েছে।

জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান বলেন, আমরা ধারণা করছি অতিরিক্ত দামে বিক্রির আশায় মজুদদাররা আলু মজুদ করে রেখেছে। আশা করছি ২/৩দিনের মধ্যেই এর সমাধান হয়ে যাবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!