ঢাকা, শনিবার, ৩১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : এপ্রিল ১৭, ২০২০

করোনা আক্রান্ত দাবি করে পুলিশ কর্মকর্তার মুখের ওপর কাশি,অতঃপর…

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ডেস্ক :-

 গোটা বিশ্ব এখন কাঁপছে করোনাভাইরাস আতঙ্কে। এই ভাইরাসের তাণ্ডবে এরই মধ্যে বিশ্বে আক্রান্ত হয়েছে ২১  লাখ সাড়ে ৮৩ হাজার মানুষ। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৪৬ হাজার ৮ শতাধিক মানুষের।

করোনাভাইরাসের ধ্বংসযজ্ঞ থেকে বাঁচতে বিশ্বের প্রায় সব দেশই বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

জারি করেছে বিভিন্ন বিধিনিষেধ। এসব বিধিনিষেধ প্রতিপালনে কাজ করছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা।

তবে এর মধ্যেও ঘটছে নানা ধরনর ঘটনা।

এমন একটি ঘটনা ঘটছে সম্প্রতি যুক্তরাজ্যে।  

করোনাভাইরাস হয়েছে দাবি করে এক পুলিশ কর্মকর্তার মুখের ওপর কাশি দেওয়ার অপরাধে যুক্তরাজ্যে এক ব্যক্তিকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের লংডনডেরি শহরে জেসন ক্লার্ক নামের ওই ব্যক্তি ৮ এপ্রিল কাশিকাণ্ড ঘটিয়েছিলেন।

বিবিসি জানায়, জেসন রাস্তায় যখন একজনকে গালিগালাজ করছিল, তখন পুলিশ তাকে থামাতে যায়। একপর্যায়ে ওই পুলিশ কনস্টেবলের মুখের ওপর সে কাশি দেয় এবং বলে সে করোনা আক্রান্ত।

জেসন আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করছেন। তাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সরকারি আইনজীবী বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে একজন পুলিশ অফিসারের মুখের ওপর ইচ্ছা করে কাশি দেওয়া বিপজ্জনক এবং অমার্জনীয় অপরাধ। ’

তিনি বলেন, যে কারোর প্রতি এ ধরনের আচরণ অগ্রহণযোগ্য, বিশেষ করে একজন অফিসারের প্রতি যিনি অপরিহার্য সেবার অংশ হিসেবে তার কর্তব্য পালন করছিলেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে বারবার বলা হচ্ছে, হাঁচি-কাশির মাধ্যমে করোনা ভাইরাস অন্য মানুষকে সংক্রমিত করে। এ কারণে শিষ্টাচার মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!