ঢাকা, শনিবার, ২৪শে অক্টোবর, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : অক্টোবর ৯, ২০২০

গণধর্ষণ মামলার বিচারক ও থানার অফিসার ইনচার্জ কে হাইকোর্টে তলব

অনলাইন ডেস্ক

বিএফ খান সবুজ বাকেরগঞ্জ||
গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর হাই কোর্টের আদেশের পর বরিশালের বাকেরগঞ্জে ৬-বছরের এক শিশু কন্যাকে গণধর্ষণ হওয়া মামলায় গ্রেপ্তার ৪-নাবালক শিশুকে নিজ নিজ বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।
শুক্রবার সকাল ৭ টা ৫০ মিনিটে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত একটি মাইক্রোবাসে করে যশোর ‘শিশু-কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে ওই ৪-শিশুকে নিয়ে বাকেরগঞ্জ উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের রুনসী গ্রামে পৌঁছে দেয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা।
বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম জানান যে, “সকালের মধ্যেই ওই চার শিশুকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করতে উচ্চ আদালতের নির্দেশ ছিল।
সে অনুযায়ী তাদের নিজ নিজ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এদিকে ওই চার শিশু তাদের নিজ নিজ বাড়িতে পৌঁছালে হৃদয়বিদারক ও আবেগঘন পরিবেশ সৃস্টি হয়।
প্রশাসনের সহযোগিতায় গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গে শিশুদের তাদের পিতা-মাতা ও স্বজনরা কাছে টেনে নিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন। জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় পুলিশের কর্মকর্তারাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য,,,
বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল কালাম সাংবাদিকদের বলেন যে,
গত রোববার খেলার কথা বলে ৬-বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ওই চার শিশুর বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়।
শিশুকন্যাটির প্রসাবের রাস্তায় সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসার জন্য বাকেরগঞ্জ স্থানীয় সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডাক্তারের দ্বারস্থ হলে, চিকিৎসক সেটিকে গণধর্ষণ মনে করে বাকেরগঞ্জ থানায় অবহিত করলে, গত মঙ্গলবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে বাকেরগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে একটি শিশু ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে অফিসার ইনচার্জ একটি ৬-বছরের কন্যা শিশু গণধর্ষণের বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে নিয়ে মামলাটি এজাহার করেন।
মামলার প্রেক্ষিতে মঙ্গলবার রাতে উপজেলার রঙ্গশ্রী ইউনিয়নের রুনসী গ্রাম থেকে প্রধান অভিযুক্ত ৪-শিশুকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে।  পরবর্তীতে বরিশাল সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক এনায়েত উল্লার নির্দেশে ১০-১১ বছর বয়সী ওই ৪-শিশুকে যশোর ‘শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানো হয়।
গণমাধ্যমে সেই খবর দেখে বৃহস্পতিবার রাতে বিচারপতি মোঃ মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের হাই কোর্ট বেঞ্চ ওই চার শিশুর জামিন নিষ্পত্তির আদেশ দেয়। যশোরের শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে ওই ৪-জন শিশুকে বৃহস্পতিবার রাতেই তাদের অভিভাবকদের নিকট পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা নিতে বলা হয়।
এছাড়াও এ মামলায় সংশ্লিষ্ট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও বাকেরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কে ১১-ই অক্টোবর রবিবার হাই কোর্টে হাজির হতে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
বিঃদ্রঃ
বার্তা সম্পাদক সাহেব ছবি দুটো জোড়া দিয়ে পোস্ট করবেন কারণ চারটি শিশুকে একসাথে পাওয়া যায়নি।

আপনার মন্তব্য

error: Content is protected !!