ঢাকা, শনিবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : নভেম্বর ২৫, ২০২০

চরকাউয়া নয়ানী স্কুলে শিক্ষার্থীদের টিসি দেওয়ার হুমকি!

অনলাইন ডেস্ক

তালাশ প্রতিবেদক ॥  বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া নয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে  টাকা পরিশোধ না করলে শিক্ষার্থীদের টিসি দেওয়ার হুমকির অভিযোগ ।

করোনাভাইরাসে কারণে সরকারি নির্দেশে দেশের সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বরিশাল সদর উপজেলার চরকাউয়া নয়নী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছে বেতন ও ফি এককালিন পরিশোধের জন্য চাপ প্রয়োগ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা বিদ্যালয়ে গেলে শিক্ষার্থী বলেন, “করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে।

আমরা স্কুলে আসি পরীক্ষার খাতা জমা দেওয়ার জন্য কিন্তু আমাদেরকে বলা হচ্ছে ৩০ টাকা দিতে হবে তা না হলে খাতা নেয়া হবে না আর টাকা না দিলে টিসি দিয়ে দেয়া হবে বিদ্যালয় থেকে।”

এসময় উপস্থিত শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে আমাদের আর্থিক অবস্থা বর্তমানে খুবই খারাপ। গতকাল খাতা জমা দিতে স্কুলে আসে আমাদের ছেলে মেয়েরা কিন্তু টাকা দিতে না পারায় বাসায় গিয়ে কান্নাকাটি করতেছে। তারা বাড়িতে গিয়ে বলে স্কুলে খাতা জমা দিতে গেছি কিন্তু খাতা জমা নিচ্ছে না স্যারদের টাকা দিতে হবে টাকা না দিলে বিদ্যালয় থেকে টিসি দেয়া হবে বলে হুমকি দিচ্ছে। এর পরে আমরা এলাকার অভিভাবকরা স্কুলে আসি কি বিষয়ে টাকা চাচ্ছে..? এবং কারেন্ট বিলের জন্য টাকা চাইতেছে স্কুল তো বন্ধ ছিল সে বিষয়ে আলোচনা করার জন্য কিন্তু স্কুলে কোনো শিক্ষককে পাওয়া যায়নি আজ ।

এ বিষয়ে  জানতে চাইলে চরকাউয়া নয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল মালেক বলেন, সরকারের নির্দেশে বেতন আদায় করা হচ্ছে কিন্তু অতিরিক্ত ৩০ টাকা নিয়ে পরীক্ষার খাতা জমা নেয়ার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন সেটা আমাদের ইনটেনশনাল বিষয় খাতা আজকে না নেই কালকে নিবো এবং কারেন্ট বিলের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন ৫ টাকা করে ছয় মাসের ৩০ টাকা নেয়া হচ্ছে বলে স্বীকার করে।

এ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ হালিম মুন্সী বলেন, এ বিষয়ে আমি গতকাল খণ্ড খণ্ড কিছু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে শুনতে পাই এবং পরবর্তীতে আজকে আমি তাদের সাথে স্কুল প্রাঙ্গনে গিয়ে প্রধান শিক্ষক মোঃ আব্দুল মালেক স্যারের সাথে ফোনে যোগাযোগ করে জানতে চাইলে অতিরিক্ত কোনো অর্থ আদায় করা হয় কিনা যদি হয় সেটা দায়ভার কিন্তু আপনাকেই নিতে হবে তখন তিনি বলেন আগামী মাসের ২ তারিখে স্কুল খুলবে তখন আলোচনা করবো অভিভাবক, শিক্ষার্থী এবং শিক্ষকদের সাথে।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বিথীকা সরকার এর কাছে জানতে চাইলে বলেন সরকার থেকে শুধুমাত্র নির্ধারিত বেতন আদায়ের নির্দেশনা আছে এর বাইরে অন্য কোন অর্থ আদায় করা যাবে না যদি এরকম কোন অভিযোগ পাওয়া যায় তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!