ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হলেন করোনাজয়ী আব্দুর রব মুন্সী

প্রকাশিত: ৭:০৫ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৯, ২০২০

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হলেন করোনাজয়ী আব্দুর রব মুন্সী

অনলাইন ডেস্ক :-



করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীকে শুধু পাড়া-প্রতিবেশী নয়, স্বজনরাও এড়িয়ে চলেন। সুস্থ্য হলেও তার প্রতি সমাজের এমন বিরূপ মনোভাবের পরিবর্তন ঘটে না। দেশে করোনাভাইরাসের সক্রমণ শুরু হলে আক্রান্তদের প্রতি এরকম বৈষম্যমূলক আচরণ যেন অনেকটা নিয়মে পরিণত হয়েছে। তবে এর ব্যতিক্রম ঘটলো বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার চরগোপালপুর ইউনিয়নে। 

এ ইউনিয়নের কাজীরচর গ্রামের আব্দুর রব মুন্সী (৫০) করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হওয়া বরিশাল জেলার প্রথম রোগী। বরিশাল শেরেবাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২২দিন চিকিৎসা নিয়ে তিনি সুস্থ হয়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়িতে ফিরেছেন। 

বুধবার সকালে তিনি চরগোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদের ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন। দেড়শ হতদরিদ্র পরিবারের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। 

জনগণের ভীতি কাটাতে করোনাজয়ী আব্দুর রব মুন্সীকে এভাবে জনসম্মুখে আনেন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান সামসুল বারী মনির। তাকে দেখতে কয়েকশ’ মানুষ ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে জড়ো হন। 

উপস্থিত সবার উদ্দেশে আব্দুর রব বলেন, করেনায় আক্রান্ত হলেই ভয় পেতে হবে না। নিয়ম মেনে চিকিৎসা নিলে আক্রান্ত প্রায় সবাই সুস্থ হতে পারেন। এ ভাইরাস থেকে পরিত্রাণ পেতে সামাজিক দূরত্ব রক্ষাসহ স্বাস্থ্য বিভাগের দেওয়া অন্যান্য নিয়মকানুন মেনে চলা এবং যার যার ধর্ম অনুযায়ী সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

চরগোপালপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সামসুল বারী মনির বলেন, ইউনিয়নের বাসিন্দা আব্দুর রব পরিবার নিয়ে নারায়নগঞ্জ থাকেন। তিনি সেখানে একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী। লকডাউনের মধ্যে গত ৭ এপ্রিল রব একা গ্রামের বাড়িতে আসেন। গ্রামে পৌঁছেই তিনি জ্বর-সর্দিসহ করোনা উপসর্গে আক্রান্ত হন। এ খবর জানাজানি হলে গোটা ইউনিয়নে আতঙ্ক দেখা দেয়। 

তিনি জানান, উপজেলা প্রশাসনের পরমর্শে ৮ এপ্রিল রব মুন্সীকে বরিশাল মেডিকেল নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন তিনি। সেখানে নমুনা পরীক্ষায় তার পজেটিভ শনাক্ত হয়। হাসপাতালের আইশোলেশনের রেখে তার চিকিৎসা দেওয়া হয়। সুস্থ হলে মঙ্গলবার হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে সন্ধ্যায় বাড়িতে পৌঁছান তিনি। 

মনির বলেন, গ্রামবাসীর ভীতি দূর করতে তিনি সিদ্ধান্ত নেন বুধবার ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে আব্দুর রবকে প্রধান অতিথি করবেন। রাতেই তিনি রব মুন্সীর বাড়িতে গিয়ে তার খোঁজখবর নেওয়ার পাশাপাশি পরদিন ইউনিয়ন পরিষদের আসতে বলেন। করোনভাইরাস আক্রান্ত হয়ে সদ্য সুস্থ হওয়া এ মানুষটিকে নিয়ে কোনো ভীতি ছিল না ইউনিয়ন পরিষদের উপস্থিত শত শত মানুষের মধ্যে। 

ত্রান বিতরণ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া লেঙ্গুটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. শাহাবউদ্দিন বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানের এ উদ্যোগটি অন্যন্য। রব মুন্সীকে এভাবে জনসম্মুখে আনা না হলে সাধারণ মানুষের মধ্যে ভীতি দূর হতো না। তাকে ও তার পরিবারের সদস্যদের সবাই এড়িয়ে চলতো।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ