পুলিশের হামলার শিকার ঠাকুরগাঁওয়ের দুই সাংবাদিক

প্রকাশিত: ১:৫৬ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

পুলিশের হামলার শিকার ঠাকুরগাঁওয়ের দুই সাংবাদিক

অনলাইন ডেস্ক :-


ঠাকুরগাঁওয়ে করোনায় আক্রান্ত বিষয়ে নিউজ সংগ্রহ করে নিজ বাসায় ফেরার সময় বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোরের জেলা প্রতিনিধি আব্দুল লতিফ লিটুর উপর হামলা ও লাঞ্ছিতের ঘটনা ঘটিয়েছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) রাত ৮টায় ঠাকুরগাঁও পৌর শহরের দুরামারী নামক স্থানে সদর থানার টহল পুলিশ সাংবাদিক লিটুকে আটকিয়ে কিছু বলার আগেই মারধর ও গ্রেফতারের চেষ্টা করে।

এ বিষয়ে সাংবাদিক আব্দুল লতিফ লিটু বলেন, ঠাকুরগাঁও সদর থানার এ এস আই ফজলে রাব্বি ও তার সাথে আরও ৪ জন সিপাহী রাস্তায় টহলে ছিল। করোনা সংক্রান্ত নিউজ সংগ্রহ করে আমি শহরের অফিস থেকে আমার বাসায় মোটরসাইকেল যোগে যাচ্ছিলাম।

রাস্তায় আমাকে পুলিশ গাড়ি থামাতে বললে আমি গাড়ি থামানোর সাথে সাথেই এ এস আই ফজলে রাব্বির নিদের্শে দু’জন সিপাহী আমি কিছু বলার আগেই আমাকে বেধরক মারধর শুরু করে ও লাঞ্ছিত করেন। কিন্তু আরও কয়েকটি মোটরসাইকেলকে থামালেও তাদের কিছু না বলেই ছেড়ে দেয় টহল পুলিশ।

তিনি আরও বলেন, পরবর্তীতে আমি আমার পরিচয় দেওয়ার পরেও এ এস আই রাব্বি ক্ষিপ্ত হয়ে বলে সাংবাদিক হলে আরও বেশি করে পেটাও।

 

আমি কোনরকমভাবে ওসিকে ফোন করলে আমাকে ছেড়ে দেয় সেই এ এস আই। তারপর আমি ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করি।  

এ বিষয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ তানভিরুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি অবশ্যই পরে গুরুত্ব সহকারে দেখবেন বলে আশ্বাস দেন।

বিষয়টি ঠাকুরগাঁও জেলা পুলিশ সুপার মনিরুজ্জামান মনিরকে অবগত করার জন্য মোবাইলে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নাই।

ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কারুজ্জামানকে এ বিষয়ে অবগত করা হলে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন এবং বিষয়টি অমানবিক বলে জানান।

বিষয়টি পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করার আশ্বাস প্রদান করেন তিনি ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ