ঢাকা, রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২১

বরিশালের বসন্তের বাতাসে করোনার শঙ্কা!

অনলাইন ডেস্ক

এম.আর.এন॥ সারাদেশের মতো বিভাগীয় শহর বরিশালেও চলছে করোনার প্রাদুর্ভাব। করোনার এই প্রাদুর্ভাবের মধ্যে শুরু হয়েছে ঋতুরাজ বসন্ত। আজ বসন্তের প্রথম দিন। ঋতুরাজ বসন্তকে বরণ করে নিতে করোনাকে উপেক্ষা করে বাধভাঙ্গা উচ্ছাসের প্রতিফল ঘটছে নগরবাসীর মাঝে। পাড়া মহল্লা থেকে শুরু করে বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো স্বল্প পরিসরে নানা আয়োজন হাতে নিলেও করোনা ঝুঁকির প্রবল প্রবণতা থেকেই যাচ্ছে। যদিও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সতেচনতামূলক বার্তা প্রতিনিয়ত প্রদান করা হলেও নগরবাসী কতটা বাস্তবায়ন করতে তা নিয়ে শঙ্কার ধ্রুমজাল থেকেই যাচ্ছে। বসন্তের প্রথম দিনের সাথে এবারও যুক্ত হয়েছে বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। এই দিবসটিতেও প্রতিবছর বর্ণাঢ্য আয়োজন পালন করা হয়ে থাকে। বিশেষ করে দর্শনীয় স্থানগুলোতে দেখা যায় উপচে পড়া ভীড়। ইতিমধ্যে দুটি দিবসকে কেন্দ্র করে বেশ কয়েকদিন ধরেই নগরীর বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে জনসমাগম ছিলো চোখে পড়ার মতো।

 

করোনার প্রাদুর্ভাব এড়াতে মাস্ক ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হলেও এসব বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে সিংহভাগ মানুষই অসচেতনতায় রয়ে গেছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিয়মিত মাস্ক ব্যবহারে মনিটরিং কার্যক্রম অব্যহত থাকলেও গা ছাড়া মনোভাবে ঘোরাফেরা করছে কিছু সংখ্যক মানুষ। যার পরিপেক্ষিতে বসন্তের বাতাসে করোনা সংক্রমনের তীব্র শঙ্কা রয়েছে বলে মনে করছেন স্বাস্থ্য বিশ্লেষকরা। গতকাল সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায়, নগরীর প্রাণকেন্দ্র কাকলীর মোড় থেকে শহীদ মিনার এলাকায় ফুলের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের আনাগোনা ছিলো চোখে পড়ার মতো। তবে এব্যাপারে নো মাস্ক-নো সার্ভিস নীতি অনুসরন করতে দেখা যায়নি কোন বিক্রেতাদের।

 

নগরীর উল্লেখ্যযোগ্য বিনোদন কেন্দ্র বিশেষ করে, বঙ্গবন্ধু উদ্যান (বেলস্ পার্ক), ত্রিশ গোডাউন বধ্যভূমি এলাকা, মুক্তিযোদ্ধা পার্ক, বিবির পুকুর পাড়, চৌমাথা লেক, স্বাধীনতা পার্ক, প্লানেট পার্কসহ বিভিন্ন পাবলিকপ্লেসে মাক্স ছাড়াই হরহামেশা চলফেরা করছে অনেক জনসাধারন। এদিকে করোনার এমন সংকটাপূর্ণ অবস্থায় প্রশাসন তাদের অভিযান এবং নিয়মিত তদারকির ব্যবস্থা আরো কঠোরভাবে গ্রহণ করবে বলে আশাবাদী নগরীর স্বাস্থ্য সচেতন মহল।

 

এব্যাপারে স্বাস্থ্য সচেতনতার বিষয়ে আবারও জোড় তাগিদ দিয়ে বরিশাল স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বিভাগীয় পরিচালক ডাঃ বাসুদেব কুমার দাস দৈনিক আজকের তালাশকে জানায়, “করোনার সংক্রমণ এড়াতে আমরা নিয়মিত সকল বিষয়ে তদারকি করছি। জনসাধারনের অবশ্যই উচিত জনসমাগম এড়িয়ে চলা। যদিও কোনা কারনে বাসার বাহিরে বের হতে হয় অবশ্যই সকল স্বাস্থ্যবিধি পরিপূর্ণভাবে পালন করার বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।”


আপনার মন্তব্য

error: Content is protected !!