ঢাকা, শনিবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : নভেম্বর ১৮, ২০২০

বাকেরগঞ্জের আওয়ামীলীগ নেতার রঙ্গলীলা ফাঁস !

অনলাইন ডেস্ক

তালাশ প্রতিনিধি ।।
বরিশালের নবগ্রাম রোডে একটি বাসায় বাকেরগঞ্জের চরাদি ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের আতাহার আলী মল্লিকের ছেলে, আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক মল্লিক কনিকা আক্তার নামের এক প্রাইমেরি স্কুল শিক্ষিকার সাথে পরকিয়ার জেরে অবৈধ মেলামেশা করতে গেলে স্থানীয় জনগণ কর্তৃক ধৃত হয়ে গণধোলাইয়ের শ্বীকার হন বলে জানা গেছে। তথ্যসূত্রে জানা যায়, বরিশালের বাকেরগঞ্জ থানার চরাদি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফারুক মল্লিক এর সাথে চরাদি গুয়াখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা মোসাঃ হোসনেয়ারা কনিকা’র বিগত ৫ বছর যাবৎ পরকিয়া প্রেম চলছিল। তারই ধারাবাহিকতায় কনিকার বাবাকে মুক্তিযোদ্ধা বানানোর কথা বলে ফারুক মল্লিক দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষিকা কনিকার সাথে অবৈধ সম্পর্কে লিপ্ত ছিল। তারা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জায়গায় বাসা ভাড়া নিয়ে অবৈধ শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে যাচ্ছিলেন বলে জানান তার স্ত্রী রুনা লায়লা। এদিকে কনিকার সাথে ফারুক মল্লিকের অবৈধ সম্পর্কের কথা তিনি জানতে পারলে তার সাথে ঝগড়াঝাটি করে ছেলে-মেয়ে ফেলে রেখে খোঁজ খবর নেওয়া থেকে বিরত থাকে অভিযুক্ত আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক মল্লিক। বর্তমানে তার ঘরে একটি প্রতিবন্ধী ছেলে ও দুই মেয়ে রয়েছে। স্বামীর এসব অপকর্মের পরিপ্রেক্ষিতে তার স্ত্রী মোসাশ রুনা লায়লা কান্নাজরিত কন্ঠে সাংবাদিকদের বলেন, তার স্বামীর সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ পারিবারিক বিষয় নিয়ে ঝামেলা চলছিল। এদিকে তাদের সংসারের অনেকদিন যাবৎ খোঁজ খবর নিচ্ছিল না। তিনি আরো বলেন, ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ফারুক মল্লিক স্থানীয় পর্যায়ে মানুষদের হয়রানি, চাঁদাবাজি ও নির্যাতন করতেন। সুযোগে গুয়াখোলা প্রাইমেরি স্কুলের শিক্ষিকা কনিকা’কে প্রেমের ফাঁদে ফেলে তার স্বামী সংসারটা পর্যন্ত ধ্বংস করে ফেলেছে। অভিযুক্ত আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক মল্লিকের স্ত্রী মোসাঃ রুনা লায়লা উক্ত ঘটনার সাথে জড়িত কনিকা ও তার স্বামী ফারুক মল্লিকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত স্থানীয় জনগণ ঘটনাস্থান থেকে অভিযুক্ত ফারুক মল্লিক’কে আটক করে পুলিশের হাতে সোপর্দ করেন। এ বিষয়ে গুয়াখোলা প্রাইমেরি স্কুলের সহকারি শিক্ষিকা মোসাঃ হোসনেয়ারা কনিকা’র ফোনে ফোন করলে তার ফোন রিসিভ করেননী।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!