ঢাকা, বুধবার, ২৮শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : জুন ১২, ২০২১

ভোলায় ভুয়া এনআইডি কার্ড ব্যবহার করে নারীর বিয়ে বাণিজ্য

অনলাইন ডেস্ক

আকতারুল ইসলাম আকাশ,ভোলা: ভোলায় ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করে প্রতারণার অভিযোগে করা মামলায় এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে ভোলা থানা পুলিশ।
পৌরসভা ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাগর বেকারি এলাকা থেকে শুক্রবার রাতে ওই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।
সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মিজানুর রহমান প্রতারণার সুনির্দিষ্ট অভিযোগ এনে বুধবার সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
মামলায় ওই নারীসহ মো. ওমর ফারুক নামের এক পুলিশ সদস্যকেও আসামি করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন।
থানা ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার নুর নাহার নিজের পরিচয় গোপন রেখে একাধিক বিয়ে করে প্রতারণা করছিলেন।
এক পর্যায়ে নুর নাহারের ভুয়া এনআইডি কার্ড করে বিয়ে বাণিজ্যের বিষয়টি প্রকাশ পেলে প্রতারণার শিকার স্বামী মহিউদ্দিন তার বিরুদ্ধে সম্প্রতি ভোলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন। পরে নির্বাচন অফিস বরাবর অভিযোগও করেন তিনি।
বিষয়টি নির্বাচন অফিসের নজরে আসলে তারা নুর নাহারের বিরুদ্ধে বুধবার সদর থানায় একটি প্রতারণার মামলা করেন। ওই মামলায় পুলিশ শুক্রবার রাতে সাগর বেকারি এলাকার একটি ফার্মেসি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।
মামলার বাদী উপজেলা নির্বাচন অফিসার মিজানুর রহমান জানান, এই নারী তথ্য গোপন করে দুটি জাতীয় পরিচয়পত্র গ্রহণ করেন। যা আইনের পরিপন্থী। সামাজিক যোগাযোগ ও গণমাধ্যমে তার সম্পর্কে অবহিত হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন জানান, এনআইডি কার্ড প্রতারণা মামলায় শুক্রবার নুর নাহারকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই নারীর বিরুদ্ধে নিরীহ মানুষকে প্রতারণার ফাঁদে ফেলে অসংখ্য মামলা দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

আপনার মন্তব্য