ঢাকা, শুক্রবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

শিরোনাম
প্রকাশ : জানুয়ারি ১০, ২০২১

মহিপুর মৎস্য বন্দরে ভাসানী দোকান জায়গা দখল করে কাঁচাপাকা ঘর নির্মাণের মহোৎসব

অনলাইন ডেস্ক

তান‌জিল জামান জয়, কলাপাড়া প্রতিনিধিঃ

কলাপাড়ার মৎস্য বন্দরে মহিপুর ভাসান দোকানীদের ব্যবসায়ীক জায়গায় দখলদাররা দখল করে কাঁচা-পাকা দোকানঘর নির্মানের মহোৎসব চালাচ্ছে। সরকারী এ সম্পত্তি উদ্ধারের জন্য মহিপুর বন্দর ব্যবসায়ী ভাসান সমিতির সভাপতি মোঃ সোহরাব হোসেনসহ ১২৩ জন ব্যবসায়ী কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিয়ে অবহিত করেন। কিন্তু ভুমিদস্যুরা তাতে কর্নপাত না করে নির্মান কাজ অব্যাহত রেখেছে। দখলদার বাহিনীর প্রধান মোঃ মিরাজ মোঃ চান মিয়া, কিরন দাসদের ভাসান ব্যবসায়ীরা ঘর তোলতে বাঁধা দিতে গেলে তাদেরকে জীবন বিপন্নের হুমকি প্রদর্শন করে। দখলদাররা তাদের অবৈধ স্হাপনা সরিয়ে না নিয়ে কাজ অব্যাহত রাখেন। ব্যবসায়ীরা শত চেষ্টা করে দখলদারদের স্হাপনা নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে না পেরে অবশেষে ব্যবসায়ীরা কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট ৫ জানুয়ারী একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ ছাড়া মৎস্য বন্দর ইজারাদার মোঃ মামুন হাওলাদার গতকাল শনিবার ভাসান ব্যবসায়ীদের বসার জায়গা থেকে অবৈধ দখলদারদের স্হাপনা সরিয়ে নেয়ার জন্য অভিযোগ করেন। ইতিমধ্যে ভাসানী দু সপ্তাহ তাদের দোকান বন্ধ রেখেছেন। এতে সাধারন ক্রেতাদের দারুনভাবে বিপাকে পড়তে হয়েছে। ভাসানী দোকান বন্ধ রাখায় বস্তি ব্যবসায়ীরা নিত্য প্রয়োজনীয় মালামালের দাম বৃদ্ধি বিক্রি করায় ক্রেতারা প্রতারিত হচ্ছে। ইজারাদার মোঃ মামুন হাওলাদার তার অভিযোগে উল্লেখ করেন যে, ভাসানী দোকান নিয়ে বাজারে না আসলে সরকারী রাজস্ব আদায় ধস পড়বে। এতে ইজারাদার দারুনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।
অপর দিকে অভিযুক্ত মোঃ মিরাজ এর মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে, তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। তাই যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর
error: Content is protected !!