শহীদ অবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেস ক্লাব নির্বাচনে মানবেন্দ্র ও জাকির প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয়ী

প্রকাশিত: ২:৩১ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৯

শহীদ অবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেস ক্লাব নির্বাচনে মানবেন্দ্র ও জাকির প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয়ী

 

ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে শহীদ অবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেস ক্লাবের নির্বাচন। নির্বাচনে মানবেন্দ্র বটব্যাল ও এসএম জাকির হোসেনের প্যানেল নিরঙ্কুশ ভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

সভাপতি সম্পাদকসহ ১৩টি পদে বিজয়ী হয়েছেন তারা। সভাপতি পদে এড. মানবন্দ্রে বটব্যাল ৪৩টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী এ্যাড. এসএম ইকবাল পেয়েছেন ৩০টি ভোট। সহ-সভাপতি পদে তপঙ্কর চক্রবর্তী ৪১ টি ও কাজী আল মামুন ৫১টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী গোপাল সরকার ২৮টি ভোট এবং সৈয়দ দুলাল ২৬টি ভোট পেয়েছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদে এস.এম জাকির হোসেন ৫০টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী মুরাদ আহম্মেদ ২২টি ভোট পেয়েছেন। কোষাধ্যক্ষ পদে মোশারফ হোসেন ৪৯ টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী জিয়া শাহীন পেয়েছেন ২৪ টি ভোট। পাঠাগার সম্পাদক পদে রুবেল খান ৩৯ টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী এম. মিরাজ হোসাইন ৩৪ টি ভোট পেয়েছেন। সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে সুখেন্দু এদবর ৫০টি ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বেলায়েত বালবু পেয়েছেন ২৩টি ভোট।

ক্রিড়া সম্পাদক পদে কেএম নয়ন ৩৯ টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী এম. জহির পেয়েছেন ৩৪ টি ভোট। দপ্তর সম্পাদক পদে এম মোফাজ্জেল ৫১টি ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী নাসির উদ্দিন পেয়েছেন ২২টি ভোট।

সদস্য পদে ৫৩টি ভোট পেয়ে মু. ইসমাইল হোসেন নেগাবান, ৪৪টি ভোট পেয়ে নুরুল আলম ফরিদ, ৪২টি ভোট পেয়ে কাজী মেহেরুন্নেসা বেগম, ৪৮ টি ভোট পেয়ে কাজী মিরাজ মাহমুদ, ৩৭টি ভোট পেয়ে গিয়াস উদ্দিন সুমন, ৪৩ ভোট পেয়ে জাকির হোসেন, ৪৯ টি ভোট পেয়ে সুমন চৌধুরী বিজয়ী হয়েছেন। সর্বোচ্চ ৫৩টি ভোট পেয়েছেন মু. ইসমাইল হোসেন নেগাবান।

এছাড়া সদস্য পদে সৈয়দ মাহমুদ হোসেন চৌধুরী ৩১টি, কমল সেনগুপ্ত ২৫টি, মনিরুল আলম স্বপন ২৬টি, এম. মোবারক আলী ২৯টি, প্রাচুর্য রানা ৩৪টি, এম লোকমান হোসাইন ২১টি, নিকুঞ্জ বালা পলাশ ২৯টি ভোট পেয়েছেন। সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন মু. ইসমাইল হোসেন নেগাবান।

নির্বাচনে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও পুলিশ সদস্যরা দায়িত্ব পালন করেছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ