ঢাকা, শুক্রবার, ২রা এপ্রিল, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : মার্চ ২৫, ২০২০

করোনা ভাইরাস এবং মানবতা পরিপূরকে স্তর

অনলাইন ডেস্ক

১০৪ নম্বর দেশ হিসেবে বাংলাদেশ যখন করোনা ভাইরাসের শিকার হলো, তারপর থেকেই এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে এবং দেশবাসী কে নিরাপদে রাখতে দেশ যতটা দ্রুত লকডাউনের পথে হাটছে ঠিক ততটা দেশের মানবিক মানুষরা ব্যাক্তি নিরাপত্তার পাশাপাশি দেশের মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় ৬ কোটি নিম্ন আয়ের মানুষের কর্মহীন হয়ে মানবেতর জীবন নিয়েও শংকায় আছেন। যার প্রমান সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন বিদ্যমান!!
অনেকেই নিজের সাধ্যের মধ্যে খেটে খাওয়া মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর চেস্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। অনেকেই আবার ফেবুতে পোস্ট দিয়ে আহ্বাম জানাচ্ছেন তাদের পাশে দাঁড়াতে। হয়তো এভাবেই করোনা ভাইরাস থেকে সামগ্রিক মুক্তি আসবে একদিন।
কিন্তু আমার ভাবনা অন্য জায়গায়। একটু খেয়াল করলে দেখবেন, করোনার আক্রোমনে সারাবিশ্বের মত দেশের সব সেক্টর ভয়াবহ ধ্বসের মুখে পড়লেও দেশের টেলিকমিউনিকেশনের পুরোধা গ্রামীনফোন, বাংলালিংক, রবি কোঃ গুলোর রমরমা অবস্থা সবসময়ের মত বিদ্যমান!!
বর্তমান পরিস্থিতিতে সরকার দেশের সব সরকারী বেসরকারি প্রতিষ্ঠান কে বাসায় বসেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন, যার ফলে অন্য সব কোম্পানী, ব্যবসায়ী, সরকারি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান লোকসানের মুখে পরলেও উল্লেখিত মোবাইল কোম্পানির ক্ষেত্রে হয়েছে ঠিল তার উল্টো, এই পরিস্থিতিতে তাদের আয় বাড়া ছাড়া কমেনি!! তাছাড়া সারা দেশে মোবাইল কোম্পানির অফিস বন্ধ থাকায়ও ব্যয় কমে আয়ের পালে হাওয়া দিচ্ছে।
এই যখন অবস্থা, সেখানে অন্য কোম্পানির কথা বাদই দিলাম শুধুমাত্র গ্রামীনফোন কোম্পানী একাই পারে মানবিক আচরনের মাধ্যমে দেশের এই ৬ কোটি মানুষের আর্থিক নিরাপত্তা দিতে। আর বাকি কোম্পানীগুলো মিলে করলে তো কথাই নেই!!
কথায় আছেনা, বিপদেই বন্ধুর আসল পরিচয়। দেশের এই চরম প্রতিকুল সময়ে গ্রামীনফোনসহ অন্যান্য মোবাইল কোম্পানীদের নিন্ম আয়ের জনগনের পাশে দাঁড়ানোর এটাই শ্রেষ্ঠ সময় বলে আমি মনে করি। সারা বছর মিডিয়া জুড়ে আবেগী বিজ্ঞাপন যে শুধু সেবা দেয়ার নামে রক্ত চোষা নয় তা প্রমানের এর চেয়ে সঠিক সময় আর আসবে বলে মনে হয় না!!
বেক্সিমকো, বসুন্ধরাগ্রুপ, এসিআই গ্রুপ, স্কয়ার গ্রুপ,
গাজী গ্রুপ, এস আলম গ্রুপসহ নাম না জানা শত গ্রুপের টাকার কুমিররা না হয় রক্তচোষা হায়নাই থেকে যাক……
এই বিপদের ওপারে আমরা আবার যখন টিভির স্ক্রিনে কোনো এক উৎসবের আগে শুনতে পাবো, সেই প্রিয় সুরের আবেগী বিজ্ঞাপন “স্বপ্ন যাবে বাড়ি আমার”….
তখন আমি, আমরা যেনো অহংকারের সাথে বলতে পারি, আমি মানবিক গ্রামীনফোনের, বাংলালিংক বা রবির একজন গর্বিত গ্রাহক!!!
শুভ কামনা…
প্রিয় বাংলাদেশ 🇩


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর