ঢাকা, শুক্রবার, ৫ই জুন, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : এপ্রিল ৩, ২০২০

ক্রান্তিকালে উধাও যুববন্ধু আরেফিন মোল্লা!

অনলাইন ডেস্ক

রকিব উদ্দিন পিয়াল ॥




পৃথিবী আজ করোনা নামক ভাইরাসের আক্রমণের শিকার । কোন প্রকার যুদ্ধ ছাড়াই অচল করে দিয়েছে পুরো বিশ্বকে। ইউরোপ থেকে আমেরিকার কেউ রেহাই পায়নি এই মহামারী ব্যাধি থেকে। ইতালি, স্পেন, আমেরিকা, কানাডাসহ উন্নত দেশগুলো যেন মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়েছে । চীনের উহান শহর থেকে বিস্তার লাভ করে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসটি। বর্তমানে পৃথিবীতে প্রায় ৯ লক্ষাধিক মানুষ এই ভাইরাসে সংক্রামিত হয়েছে। তাদের মধ্যে মারা গেছে প্রায় ৪৮,১৮৫ জন মানুষ । এই মহামারী ভাইরাসের সংক্রামণ থেকে বাদ যায়নি বাংলাদেশও ।
বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মোট ৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং এদের মধ্যে ৬ জন মারা গেছে। দেশকে করোনা থেকে মুক্ত রাখার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সকল সরকারি-বেসরকারি অফিস আদালত বন্ধ ঘোষণা করেছেন এবং দেশ লকডাউন করে সবাইকে নিরাপদে নিজ গৃহে অবস্থান করার পরামর্শ দিয়েছেন। জরুরি অবস্থায় দেশের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে জেলা-উপজেলা শহরে সেনাবাহিনী মোতায়ন করা হয়েছে। প্রতিরোধ ব্যবস্থায় তৎপর রয়েছেন স্থানীয় প্রশাসন।

সরকারি ভাবে ইতিমধ্যে বরাদ্দকৃত ত্রাণ তহবিল পৌঁছে দেয়ায় নিরলস কাজ করছে দপ্তর গুলো। স্থানীয় জণপ্রতিনিধিরা এগিয়ে আসছেন তাদের দায়িত্বশীলতার জায়গা থেকে। জাতির এমন ক্রান্তিকাল ঐক্যবদ্ধ ভাবে মোকাবিলা করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন “দুর্যোগের সময় মনুষ্যত্বের পরীক্ষা হয়, যেই ভাবে দরজায় গিয়ে ভোট চেয়েছেন, সেই ভাবে অসহায়দের কাছে পৌঁছে যাবেন।”

দেশের এমন সংকটপূর্ণ মূহুর্তে ভিন্ন রূপ দেখা যাচ্ছে বরিশাল সদর আসনে। নির্বাচনী মাঠে হঠাৎ আর্বিভাব হওয়া সমাজসেবক ভূমিকায় থাকা স্ব-ঘোষিত যুববন্ধু উপাধি খ্যাত আরেফিন মোল্লার খোঁজ পাওয়া যেন সোনার হরিণ পাওয়ার মতো। বরিশাল সদর আসনের সংসদ সদস্য মনোনয়ন পাওয়ার দীর্ঘ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে সামাজিক ভাবে লোক দেখানো কার্যক্রমে বর্ষীয়াণ ভূমিকায় নিজেকে পরিচয় করালেও দেশের এমন সংকটপূর্ণ মূহুর্তে জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন রয়েছেন তিনি। অবশ্য আরেফিন সমর্থকদের মধ্যে থেকে একটি বিশ্বস্ত সূত্রের দাবি, রাজনীতির আধিপত্য ও টানাপোড়ানের কবলে পরে তার এমন জনগণ থেকে বিমুখ হওয়াই মুখ্য কারণ।
কিন্তু একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, সদর আসনের খোঁজ খবর রাখাতো দূরের কথা, নিজ এলাকায়ও খেটে খাওয়া মানুষের পাশে নেই স্ব-ঘোষিত এই যুববন্ধু। নির্বাচনী মাঠে জনগণের মানবতার সারথী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করা যুববন্ধুর লাপাত্তা হওয়ার বিষয়ে চলছে নানান গুঞ্জণ। এক সময় জনগণের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়ে তথাকথিক প্রচার-প্রচারনায় তুমুল সাড়া জাগানো এই নেতা এখন সাধারণ জনগণের-ই চোখের আড়াল!
তার এমন অনুপস্থিতি নিয়ে বরিশালের সাধারণ মানুষের মাঝে চলছে ঘোর আলোচনা ও আক্ষেপ! স্থানীয়দের দাবী সদর আসনের নির্বাচনে জনসমর্থন পেতে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ করলেও এখন এমন ক্রান্তিলগ্নে কোন ভূমিকা নেই কেন্দ্রীয় হেবিওয়েট নেতাদের নাম ভাঙ্গিয়ে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ হওয়া আরেফিন মোল্লার। তবে সোশ্যাল মিডিয়ার গন্ডিতেই সীমাবদ্ধ রয়েছে তার আনাগোনা!
করোনার প্রভাবে কর্মহীন হয়ে ত্রাণ বঞ্চিত হয়ে মানবতার দিনযাপন পার করছে তার নিজ জন্ম এলাকার কয়েক হাজার অসহায় মানুষ। শুধু তাই নয় অসহায়ত্বের কণ্ঠে প্রকাশ করছেন তাদের আক্ষেপ।
শুধু বর্তমান পরিস্থিতি নয় বিভিন্ন সময়ে নিজের নানান কর্মকান্ডে অনিয়ম দূর্নীতির পাহাড় সমান অভিযোগ মাথায় নিয়ে অদৃশ্য হয়েছেন তিনি । দেশের এই মহামারিতে সরকার সকল ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করায় কর্মহীন হয়ে সদর আসনের খেটে খাওয়া মানুষের মাঝে চলছে হাহাকার! রাত পার হলে সকাল! কি খাবে এমন চিন্তায় দিশেহারা সাধারণ জনতা।
বিভিন্ন সময়ে জনগনকে নানান প্রতিশ্রুতির মায়াজালে রাখা এই নেতার এমন অনুপস্থিতি নিয়ে কথা হয় তার নিজ এলাকার কিছু খেটে খাওয়া মানুষের সাথে। তাদের অভিযোগ-

“মোল্লা সাব তো এহন আকাশের চাঁদ, হ্যারে দেখছি নির্বাচনের সময়,নির্বাচন ও শ্যাষ আমাগো উফরে দরদও শ্যাষ


আপনার মন্তব্য