ঢাকা, শুক্রবার, ৫ই জুন, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : এপ্রিল ৪, ২০২০

শেবাচিমে করোনা সন্দেহে ২৪ ঘণ্টায় ৮ জন ভর্তি

অনলাইন ডেস্ক

তালাশ প্রতিবেদক ॥
করোনা সন্দেহে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হয়েছে ৮ জন রোগী। জ্বর, সর্দি-কাঁশি ও গলা ব্যাথা নিয়ে গত শুক্রবার রাত পৌঁনে ১০টা থেকে শনিবার রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি হন তারা। তবে তারা করোনায় আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত করে বলতে পারেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। যদিও ভর্তি হওয়ার রোগীদের রক্তের নমুনা ঢাকায় আইইডিসিআরে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন।

গত শুক্রবার রাত পৌনে ১০ টায় জ্বর, গলা ব্যাথা ও কাশি নিয়ে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন জেলার মেহেন্দিগঞ্জের আন্দারমানিক গ্রামের সবুজ আকন (২৮)। করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে প্রেরন করা হয় হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে। শনিবার বিকেলে জ্বর, গলা ব্যাথা ও কাশি নিয়ে করোনা ওয়ার্ডে ভর্তি হন বরগুনার পাথরঘাটার কালিবাড়ী গ্রামের মনির খাঁ (১৯)। পরবর্তীতে একই ধরনের উপসর্গ নিয়ে পটুয়খালীর মির্জাগঞ্জের দোকলাখালী গ্রামের রুনু বেগম (৪০), ভোলা সদরের চন্দ্রপ্রসাদ গ্রামের নূরুল ইসলাম (৬৫), পিরোজপুরের নেছারাবাদ গ্রামের সোহাগদল গ্রামের মো. হানিফ (৬০), নগরীর ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের রূপাতলীর ফাতেমা বেগম স্বর্ণা (১৩), পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার বাদুরতলা গ্রামের মো. মুসা (১৪), এবং ঝালকাঠির কাঠালিয়ার পলাশ শীল (১৪) হাসপাতালের জরুরী বিভাগে এলে তাদের প্রত্যেককে করোনা ওয়ার্ডে স্থানান্তর করে কর্তৃপক্ষ।

ভর্তি হওয়ার রোগীদের স্বাভাচিক চিকিৎসা চলছে এবং তাদের রক্তের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় আইইডিসিআর এ পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন শের-ই বাংলা মেডিকেল হাসপাাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন।
এর আগে এই হাসপাতালের করোনা ওযার্ডে চিকিৎসা নেয়া ৪ জন এবং মারা যাওয়া ২ জনের রক্তের নমুনা ঢাকায় আইইডিসিআর এ পাঠানো হলেও তাদের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। অর্থাৎ মারা যাওয়া ২ জনের কেউ করোনায় আক্রান্ত ছিলেন না বা চিকিৎসা নেয়া ৪ জনের কেউই করোনা আক্রান্ত নয়।


আপনার মন্তব্য