ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ঠা জুন, ২০২০ ইং

শিরোনাম
প্রকাশ : মে ৬, ২০২০

মুলাদীতে প্রবাসী ইমরান হত্যার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন

অনলাইন ডেস্ক

আবু হানিফ মুলাদী ॥

বরিশাল জেলার মুলাদী উপজেলার সফিপুর ইউনিয়নের উত্তর বালিয়াতলী গ্রামের বাসিন্দা ছাত্রলীগ কর্মী ইমরান বেপারীর সকল হত্যাকারীকে গ্রেফতারপূর্বক ফাঁসির দাবিতে বুধবার সকালে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী।
সফিপুর ইউনিয়নবাসীর ব্যানারে সকাল ১১ ঘটিকার সময় স্থানীয় আমানতগন্জ বাজারে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন চলাকালীন সময় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পরেন নিহত ইমরানের পিতা আলতাফ বেপারী।
তিনি বলেন, এই হত্যাকান্ড একজনের পক্ষে সম্ভব নয়। এ ঘটনার সাথে আরও লোক জড়িত রয়েছে। আমি সকল হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারপূর্বক ফাঁসির দাবি করছি
ইউপি চেয়ারম্যান আবু মুসা হিমু মুন্সী বলেন, পুলিশ মাত্র দুইদিনের মধ্যে চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের মূলরহস্য উদ্ঘাটনসহ মূল ঘাতক যুবরাজ খলিফাকে যেভাবে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছেন, তেমনি দ্রুতভাবে এ হত্যার সাথে জড়িত সকলকে গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইমরানের প্রেমিকা ওই কলেজের এক ছাত্রী বলেন, তাদের প্রেমের সম্পর্কের কথা জানতে পেরে এলাকায় নানা অপপ্রচার চালিয়ে তাকে ব্লাক মেইল করার চেষ্টা করে একই গ্রামের যুবরাজ খলিফা (২৬)।
তিনি আরও জানান, ঘটনারদিন গত ২৯ এপ্রিল রাত ১১টার দিকে ইমরান তার সাথে দেখা করার জন্য তাদের বাড়ির পাশে আসে।
ওইসময় পূর্ব থেকে ওৎ পেতে থাকা যুবরাজ ও তার ৩/৪জন সহযোগিরা ইমরানের ওপর হামলা চালায়। আত্মরক্ষার্থে ইমরান দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলেও যুবরাজ ও তার সহযোগিরা তাকে ধাওয়া করে। একপর্যায়ে ইমরান একটি ফসলি ক্ষেতের মধ্যে পরে যাওয়ার পর যুবরাজ ও তার সহযোগিরা তাকে (ইমরান) কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যা করে।
জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ নাঈমুল হক জানান, নিহতের পিতা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে গত ৩০ এপ্রিল রাতে মুলাদী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরবর্তীতে পুলিশ বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে প্রধান হত্যাকারী যুবরাজকে গত ১ মে গ্রেফতারসহ হত্যার কাজে ব্যবহৃত চাক্কু, রক্তমাখা জামা ও নিহত ইমরানের মোবাইল ফোন সেট উদ্ধার করেছে।
তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃত যুবরাজ আদালতে হত্যাকান্ডের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।


আপনার মন্তব্য